Saturday , April 13 2024

মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট

কুমারখালী প্রতিনিধি :



কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নের বেড় কালোয়া গ্রামের জিয়া হত্যা মামলা ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক মিয়ার বাড়িতে গত বৃহস্পতিবার আনুমানিক রাত ৮ টার দিকে ঘর বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনার নেতৃত্ব দেয় কালোয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিলন মাষ্টার। এছাড়াও বিশু, সোহেল, রাসেল, ইয়ারুল, খালেক, হৃদয়, আতিয়ার সহ ৫০/৬০ জন দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র হামলা চালিয়ে ৬টি ঘর ভাংচুর করে ঘরের দরজা জানালা ভাংচুর করে ও আসবাবপত্র লুট করে নিয়ে যায়। সেই সাথে স্বর্নালংকার ও ২ লক্ষ টাকা লুট করে।


এই ব্যাপারে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক মিয়ার স্ত্রী হালিমা ইয়াসমিন জানান, মিলন মাষ্টারের নেতৃত্বে রাত ৮টার দিকে ৫০-৬০ জন দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আমার বাড়িতে হামলা চালায় এবং ৬টি ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করে। দুইটি ফ্রিজ, তিনটি টেলিভিশন, নগদ দুই লক্ষ টাকা ও ৫ ভরি স্বর্ণ লুট করে নিয়ে যায়। সেসময় আমাকে মারধর করে। আমি জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। এই ব্যাপারে কুমারখালী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।


এই বিষয়ে কুমারখালি থানার অফিসার ইনর্চাজ আকিবুল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এই ব্যাপারে অভিযোগ হয়েছে, মামলা নেওয়া হবে।

About somoyer kagoj

Check Also

স্বামী ও শশুর বাড়ীর নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যু। পরিবারের অভিযোগ।

স্টাফ রিপোর্টার কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার কয়া ইউনিয়নে শশুর বাড়ীর নির্যাতনে এক গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ করেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *