Saturday , April 13 2024

স্ত্রীকে সংসদে নিচ্ছেন না জি এম কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক:

এবার স্ত্রী শেরীফা কাদেরকে সংসদে নিচ্ছেন না জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জি এম কাদের। ভাগের দুই সংরক্ষিত নারী আসনে জাপার প্রার্থী হবেন- দলের কো-চেয়ারম্যান সালমা ইসলাম ও ঠাকুরগাঁও জেলা সভাপতি নুরুন নাহার বেগম। বৃহস্পতিবার সমকালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জাপা মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

৭ জানুয়ারির দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে মাত্র ১১ আসন পেয়ে ভরাডুবি হয়েছে জাতীয় পার্টির। স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জয়ী হন ৬২ আসনে। যদিও স্পিকার জাপাকে প্রধান বিরোধীদলের স্বীকৃতি দিয়েছেন। জি এম কাদের পেয়েছেন বিরোধীদলের নেতার মর্যাদা।

নির্বাচনের আগে থেকেই অস্থিরতা চলছে জাপায়। দলীয় নেতৃত্ব নিয়ে বিরোধে টিকতে না পেরে নির্বাচন বর্জন করেন রওশন এরশাদ। সম্মানজনক সংখ্যক আসন নিয়ে বিরোধী দল হওয়া ও জি এম কাদের হবেন বিরোধীদলের নেতা- এই শর্তে বিএনপিবিহীন নির্বাচনে অংশ নেয় জাপা। দলটি ২৬ আসন ছেড়ে প্রার্থী প্রত্যাহার করে নেয় আওয়ামী লীগ।

ভোটের পর লাঙলের প্রার্থীরা অভিযোগ করছেন, শেরীফা কাদেরকে আসন ছাড় দেওয়ায় দলের নেতাদের মতামত উপেক্ষা করে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন জি এম কাদের। আওয়ামী লীগ শেরীফা কাদেরকে আসন ছাড়তে রাজি ছিল না। জি এম কাদের এতে বেঁকে বসেন। ঢাকা-১৮ আসনে শেরীফা কাদেরের জন্য ছাড় পাওয়ার পর নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দেন জি এম কাদের।

আসন ছাড় পেলেও ভোটের ভরাডুবি হয়েছে শেরীফা কাদেরের। মাত্র ৬ হাজার ভোট পেয়ে জামানত হারিয়েছেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়নবঞ্চিত দুই প্রার্থী ৭৯ হাজার এবং ৪৫ হাজার ভোট পেয়ে মূল লড়াইয়ে ছিলেন। ভোটের আগের শেরীফা কাদেরকে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য করেন জি এম কাদের।

নির্বাচনের পর জি এম কাদেরের সমালোচনায় মুখর নেতারা শেরীফা কাদেরের আসন ছাড় পাওয়া এবং প্রেসিডিয়াম সদস্য বনে যাওয়া নিয়ে সবচেয়ে বেশি কথা বলেন। ২০১৯ সালে জি এম কাদের জাপার চেয়ারম্যান হওয়ার পর দলে শেরীফা কাদেরের গুরুত্ব দিনে দিনে বেড়েছে। মাসুদা এম রশিদ চৌধুরীর মৃত্যুতে শূন্য সংরক্ষিত মহিলা আসনে ২০২১ সালের নভেম্বরে এমপি হন তিনি। এবারও সংরক্ষিত নারী আসনে শেরীফা কাদের এমপি হতে যাচ্ছেন- এ সম্ভাবনায় জাপায় ক্ষোভ আরও বাড়ে।

নবম সংসদে ৪, দশমে ৬, একাদশে ৪টি নারী আসন ভাগে পেয়েছিল জাপা। এবার পাচ্ছে দুটি। দলীয় সূত্রের খবর, আগ্রহী ছিলেন অনেকেই। জাপার কো-চেয়ারাম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলদার তার স্ত্রী নাসরিন জাহান রত্নার জন্য আসন চেয়েছিলেন। নবম সংসদের সংরক্ষিত আসনের এই এমপি গত দুইবার বরিশাল-৬ আসন থেকে নির্বাচিত। এবার পরাজিত হয়েছেন। ঢাকা-৪ আসনের দুইবারের এমপি এবং জাপার কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এবার পরাজিত হয়ে তার স্ত্রী সালমা হোসেনকে সংরক্ষিত আসনে এমপি বানাতে চেষ্টা করেন। এছাড়াও জাপার সাবেক নারী এমপিসহ অনেকেই ছিলেন মনোনয়নপ্রত্যাশী।

জাপা সূত্রে জানা যায়, বিতর্ক এড়াতে জি এম কাদের নিজের স্ত্রী ও ব্যবসায়ী পত্নীদের বাদ দিয়ে তৃণমূলের নেত্রী নুরুন নাহার বেগমকে সংসদে পাঠাচ্ছেন। নুরুন নাহার ৭ জানুয়ারির নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-১ আসনে লাঙলের প্রার্থী হয়েছিলেন।

সালমা ইসলাম নবম ও একাদশ সংসদে নারী আসনের এমপি ছিলেন। দশম সংসদে ঢাকা-১ আসনে জয়ী হন। একই আসনে এবার তিনি পরাজিত হয়ে সংরক্ষিত কোটায় সংসদে যাচ্ছেন।

About somoyer kagoj

Check Also

সুস্থ বোধ করায় খালেদা জিয়া বাসাতেই পর্যবেক্ষণে থাকবেন, প্রয়োজন হলে হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সুস্থ বোধ করায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বুধবার (২৭ মার্চ) রাতে আর হাসপাতালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *