Thursday , April 18 2024

গাজা ধ্বংসের বাজেটে আরও ১৫ বিলিয়ন ডলার ইসরাইলের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

গাজা ধ্বংসের বাজেটে আরও ৫৫ বিলিয়ন শেকেল অর্থাৎ ১৫ বিলিয়ন ডলার (১৫শ কোটি ডলার) যোগ করেছে ইসরাইল। দেশটির অর্থ মন্ত্রনালয় এবং প্রধানমন্ত্রী কার্যলয়ের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, সোমবার ২০২৪ সালের জন্য এই বর্ধিত বাজেটটি অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা ।

গাজা যুদ্ধের জন্য এই বাজেট বরাদ্দের পাশাপাশি অন্যান্য বিভাগের জন্যও তহবিল বাড়িয়েছে ইসরাইলের নেতানিয়াহু সরকার। খবর রয়টার্সের।

বর্ধিত এই বাজেট অনুযায়ী, ইসরাইলের স্বাস্থ্যসেবা, পুলিশ, কল্যাণ এবং শিক্ষার জন্য উচ্চ বরাদ্দ সহ প্রতিরক্ষা ও সংঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ক্ষতিপূরণের জন্য আরও অর্থ অন্তর্ভুক্ত করা হবে। সব মিলিয়ে ২০২৪ সালে মোট ব্যয়ের পরিমাণ হবে ৫৮২ বিলিয়ন শেকেল। যা এর প্রাথমিক বাজেট থেকে প্রায় ৭০ বিলিয়ন বেশি।

ইসরাইল গত বছরই ২০২৩ এবং ২০২৪ সালের জন্য দুই বছরের বাজেট অনুমোদন করেছিল। কিন্তু গাজা যুদ্ধে অতিরিক্তি অর্থের প্রয়োজন হওয়ার এই বাজেট পরিবর্তনে বাধ্য হয়েছে নেতানিয়াহু সরকার।

বাজেট পাসের পর ইসরাইরের অর্থমন্ত্রী বেজালেল স্মোট্রিচ বলেন, ‘সরকার তাদের পেছনে আছে তা যেন প্রতিটি যোদ্ধা ও তাদের পরিবার যেন বুঝতে পারে সেই লক্ষ্যে আমরা আমাদের এই বাজেট পরিবর্তন করেছি’।

ইসরাইলের এই বর্ধিত বাজেটে সমালোচিত হচ্ছে নেতানিয়াহু সরকার। প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর প্রধান রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দী বেনি গ্যান্টজের ন্যালনাল ইউনিটি দল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, নতুন বাজেট ‘অগ্রাধিকারের প্রয়োজনীয় মৌলিক পরিবর্তনকে প্রতিফলিত করে না। আর এই বাজেটে যুদ্ধের ভয়াবহ পরিণতিকে উপেক্ষা করা হয়েছে’। বিরোধীদলীয় আরেক নেতা ইয়ার ল্যাপিডের ইয়েশ আতিদ পার্টিও বাজেটকে ‘ব্যর্থতার সরকার’ বলে নিন্দা জানিয়েছে।

গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে চলতি বছরের ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি যুদ্ধের খরচ ২১৭ বিলিয়ন শেকেল (৫৯.৩ বিলিয়ন ডলার) পৌঁছেছে।

এ বিষয়ে ইসরাইলি সংবাদপত্র ইয়েদিওথ আহরনোথ জানিয়েছে, ‘এখন পর্যন্ত যুদ্ধের খরচ প্রায় ৬০ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। আর এর মধ্যে রয়েছে যুদ্ধের বাজেটের পাশাপাশি প্রতিটি বেসামরিক নাগরিকের জন্য বিভিন্ন ধরণের আর্থিক সহায়তা। কারন এই যুদ্ধের কারনে তাদের আয় হ্রাস পেয়েছে’।

গাজায় প্রতিদিনই হামলা চালাচ্ছে ইসরাইলের সেনাবাহিনী। আল জাজিরার বুধবারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইসরাইলের গোলাবর্ষণের কারনে দক্ষিণ গাজার খান ইউনুসে তাদের সামরিক ফিল্ড হাসপাতালটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে জর্ডানের সেনাবাহিনী।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় জানিয়েছে, গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত (বুধবার পর্যন্ত) ইসরাইলি হামলায় ফিলিস্তিনিদের মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ২৪ হাজার ৪৪৮ জনে দাঁড়িয়েছে। আর আহত হয়েছেন ৬১ হাজার ৫০৪ জন। এরমধ্যে শুধুমাত্র ২৪ ঘন্টায় ১৬৩ জন নিহত এবং ৩৫০ জন আহত হয়েছেন। গাজার পাশাপাশি অধিকৃত পশ্চিম তীরেও ড্রোন হামলা ও স্থল অনুপ্রবেশ জোরদার করেছে ইসরাইলের সামরিক বাহিনী।
ইসরাইলের হামলায় বুধবার অন্তত সাতজন নিহত এবং আহত হয়েছেন অনেকে। আগেরদিনই কাতার ও ফ্রান্সের মধ্যস্থতায় হামাস ও ইসরাইলের মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি সই হয়েছে।

সমঝোতা চুক্তি অনুযায়ী, হামাসের হাতে জিম্মিদের সুরক্ষার বিনিময়ে গাজায় ওষুধ ও মানবিক ত্রাণ প্রবেশ করতে দেবে ইসরাইল।

About somoyer kagoj

Check Also

ইসরায়েলে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে ইরান, যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলেটে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত হয়েছেন অন্তত ১৩ জন। এ হামলার পেছনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *