Sunday , April 14 2024

পশ্চিমতীরে সহিংসতায় নিহত ফিলিস্তিনির সংখ্যা বেড়ে ৯

আন্তর্জতিক ডেস্ক:

অধিকৃত পশ্চিমতীরজুড়ে বিমান হামলা, বন্দুকযুদ্ধ ও বিস্ফোরণে কমপক্ষে নয়জন ফিলিস্তিনি এবং দুইজন ইসরায়েলি নিহত হয়েছে বলে উভয় পক্ষের কর্মকর্তারা জানিয়েছে। স্থানীয় সময় রবিবার এ ঘটনা ঘটে। ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, উত্তর পশ্চিমতীরের জঙ্গি ঘাঁটি জেনিন শরণার্থী শিবির এলাকায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় সাত ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

ইসরায়েলি পুলিশ বলেছে, ‘ক্যাম্পে একটি অভিযান চালানোর সময় একটি বিস্ফোরক ডিভাইস বিস্ফোরিত হলে একজন কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন এবং আরো তিনজন কর্মকর্তা আহত হয়েছেন।

আরো একটি পৃথক ঘটনায় তিন বছর বয়সী এক শিশু নিহত হয়েছে। একটি গাড়ি চেকপোস্টে না থেমে দ্রুতবেগে ইসরায়েলি পুলিশ কর্মকর্তাদের দিকে ধেয়ে আসে। গাড়িটি লক্ষ্য করে গুলি চালায় ইসরায়েলি কর্মকর্তারা। এতে এক ব্যক্তি ও এক নারীর মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে ইসরায়েল।

ওই ঘটনাতেই একটি গুলি গিয়ে লাগে তিন বয়সী ওই মেয়ে শিশুর গায়ে।
ইসরায়েলের নিরাপত্তারক্ষীরা জানিয়েছেন, তৎক্ষণাৎ ওই শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসকরা। ইসরায়েলের জরুরি চিকিৎসা সংস্থা ‘ম্যাগেন ডেভিড অ্যাডম’ জানিয়েছে, পরীক্ষার পর তিন বছর বয়সী এক শিশুকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

এদিকে ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রামাল্লার উত্তরে আবওয়েন গ্রামে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। রামাল্লার অন্য এক এলাকায় আরো একজন ইসরায়েলি বেসামরিক নাগরিক অজ্ঞাত আততায়ীর গুলিতে নিহত হয়েছেন। সেনাবাহিনীর মতে, ইসরায়েলি সেনাবাহিনী সন্দেহভাজন ব্যক্তির সন্ধান করছে বলে জানিয়েছে। পশ্চিম তীরে সহিংসতা ৭ অক্টোবর থেকে বেড়ে গেছে।

এদিকে সরকারি ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থা ওয়াফা রবিবার ভোরে জানায়, জেনিনে ইসরায়েলি বাহিনীর একটি বড় দল মোতায়েনের করা হয়েছে। তারা আরো জানায়, ইসরায়েলি ড্রোন হামলায় সেখানে চার ভাইসহ ছয়জন নিহত হয়েছেন। পরে সপ্তম ব্যক্তি আহত অবস্তায় মারা যায়। জেনিনের বাসিন্দা সুলেমান মুসা এএফপিকে বলেন, ‘গুলির শব্দের পর বিমান হামলা চালানো হয়। আমরা এখানে এসে দেখেছি মৃত মানুষের শরীরের কিছু অংশ মাটিতে ছড়িয়ে আছে। যা একটি ভয়াবহ দৃশ্য ছিল এবং তখন আমাদের কী করণীয় ছিল তা বুঝতে পারছিলাম না।’

এএফপির একটি ফুটেজে দেখা গেছে, একটি আশ্রয় শিবিরের কাছে বাসিন্দাদের রক্ত ফুটপাতজুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে।’ ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বলেছে, তারা ঘন ঘন অভিযান চালাচ্ছে সন্ত্রাসীদের লক্ষ্য করে। তবে ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, তারা প্রায়ই বেসামরিক মানুষকে হত্যা করে। ৭ অক্টোবর থেকে ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইসরায়েলি বাহিনী এবং বসতি স্থাপনকারীদের হামলায় পশ্চিম তীরে কমপক্ষে ৩৩০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

About somoyer kagoj

Check Also

ইসরায়েলে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে ইরান, যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলেটে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত হয়েছেন অন্তত ১৩ জন। এ হামলার পেছনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *