Friday , April 19 2024

নতুন বছরে ব্যাপক অস্ত্র উৎপাদন করবে ইউক্রেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

নতুন বছরে নানা দেশ নানা পরিকল্পনা সাজাচ্ছে। তেমনিভাবে রাশিয়ার হামলাকে রুখে দিতে নতুন পরিকল্পনা নিয়েছে ইউক্রেন। দেশটি আগামী বছর ব্যাপক অস্ত্র উৎপাদনের ঘোষণা দিয়েছে। সোমবার (০১ জানুয়ারি) বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নববর্ষের বার্তায় ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, নতুন বছরে অস্ত্র উৎপাদনে জোরাদার করবে ইউক্রেন। আগামী এক বছরের মধ্যে দেশটি এক মিলিয়ন (১০ লাখ) ড্রোন উৎপাদনের ঘোষণা দিয়েছে।

নববর্ষের রাতেও দুই দেশ পাল্টাপাল্টি হামলা চালিয়েছে। এতে অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে রাশিয়া ইউক্রেনের ওডেশা বন্দরে এবং ইউক্রেন রাশিয়ার দোনেৎস্ক অঞ্চলে হামলা চালিয়েছে।

ইউক্রেন নতুন বছর অস্ত্রের ওপর জোর দিলেও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন সেনাবাহিনীর প্রশংসা করেছেন। তবে তিনি যুদ্ধ নিয়ে কোনো কথা বলেননি।

পোল্যান্ডের আকাশে ঢুকে পড়েছে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র
রাশিয়ার এ হামলা তৃতীয় বছরে পদার্পণ করায় জেলেনস্কি বলেন, আগামী বছর শত্রুরা আমাদের দেশীয় অস্ত্রের তীব্রতা বুঝতে পারবে। নতুন বছর ২০২৪ সালে ইউক্রেন আরও অতিরিক্তি এক মিলিয়ন ড্রোন উৎপাদন করবে ইউক্রেন। এ ছাড়া চলতি মাসের শুরুতে দেশটি পশ্চিমা মিত্রদের থেকে এফ-১৬ যুদ্ধবিমান পাওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমাদের পাইলটরা এফ-১৬ যুদ্ধবিমান পরিচালনার প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেছে। আমরা দ্রুত এগুলোকে আমাদের আকাশে দেখকে পাব। আমাদের শত্রুরা এবার আমাদের প্রকৃত শক্তি দেখতে পাবে।

এর আগে গত শনিবার রয়টার্স জানায়, শুক্রবার ইউক্রেনে সবচেয়ে বড় বিমান হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ার এসব হামলায় ৩১ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত এবং ১৬০ জনের বেশি মানুষ আহত হয়েছেন। এ ছাড়া ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে দেশজুড়ে বিভিন্ন শহর ও স্থাপনার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

কর্মকর্তারা বলেছেন, রাজধানী কিয়েভে অন্তত ৯ জন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন। গুদামঘর, আবাসিক ভবন ও জনমানবহীন এক স্থাপনায় ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানলে তারা নিহত হয়েছেন।

মারিয়া নামে কিয়েভের এক বাসিন্দা রয়টার্সকে বলেছেন, তিনি ভয়াবহ শব্দে ঘুম থেকে জেগে ওঠেন। এরপর ঘরের বাথরুমে গিয়ে আশ্রয় গ্রহণ করেন।

ইউক্রেনের বিমানবাহিনী জানিয়েছে, ১৫৮টি বিমান হামলা করেছে রাশিয়া। এদের মধ্যে ৮৭টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ও ২৭টি ড্রোন গুলি করে ভূপাতিত করা হয়েছে।

প্রতিরক্ষামন্ত্রী রুস্তেম উমেরভ বলেছেন, ইউক্রেন যুদ্ধ শুরুর পর সবচেয়ে বড় বিমান হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। তাদের ১৮টি কৌশলগত বোমারু বিমান এতে অংশগ্রহণ করেছে।

About somoyer kagoj

Check Also

ইসরায়েলে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে ইরান, যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ায় ইরানের কনস্যুলেটে ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত হয়েছেন অন্তত ১৩ জন। এ হামলার পেছনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *