Saturday , April 13 2024

বিএনপির ৪৫ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড

বিশেষ প্রতিবেদন:

রাজধানীর শাহবাগ ও উত্তরখান থানার পৃথক দুই মামলায় বিএনপির ৪৫ নেতাকর্মীর বিভিন্ন মেয়াদের কারাদণ্ডের রায় ঘোষণা করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকালে ঢাকার পৃথক দুই মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এই রায় ঘোষণা করেন।

ছয় বছর আগে নাশকতার অভিযোগের এক মামলায় বিএনপি’র ৩৫ নেতাকর্মীর মধ্যে ১৩ জনের প্রত্যেকের দণ্ডবিধির ৩৫৩ ধারায় দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদ্দাম হোসেনের আদালত। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আরও ২২ জনকে বেকসুর খালাসের আদেশ দেন আদালত।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত উল্লেখযোগ্য আসামিদের মধ্যে রয়েছেন দেলোয়ার হোসেন শান্ত, মো. সেলিম মোল্লা, মো. স্বপন বেপারী, নাজমুল হাসান, মো. লুৎফর রহমান, মো. আরাফাত, মো. কামাল হোসেনসহ প্রমুখ। ২০১৭ সালের জুন মাসের নাশকতার অভিযোগ রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

পাঁচ বছর আগে বেআইনি সমাবেশ ও নাশকতা করার অভিযোগের এক মামলায় বিএনপি ৩২ নেতাকর্মীর পৃথক দুই ধারায় ২০ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মোশাররফ হোসেনের আদালত এই রায় দেন। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আরও দুইজনকে খালাসের আদেশ দেন।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন— মো. আহসান হাবীব মোল্লা, মো. রায়হান, মো. সেলিম মোল্লা, মো. আনোয়ার হোসেন বকুল, মো. নোয়াব আলী খান, মো. ফায়েজুল ইসলাম সবুজ, সৈয়দ সুজন আহমেদ, মো. আব্দুর রহিম, মো. তোফাজ্জল হোসেন যে মিঠু, জাহাঙ্গীর আলম বেপারী, মো. কিরণ সরকারসহ প্রমুখ।

দণ্ডবিধি আইনে ৩২ আসামির প্রত্যেকের ১৪৩ ধারায় দুই মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং ৩৫৩ ধারায় আঠারো মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বেআইনি সমাবেশ ও নাশকতার সৃষ্টির অভিযোগে উত্তর খান থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।

About somoyer kagoj

Check Also

সুস্থ বোধ করায় খালেদা জিয়া বাসাতেই পর্যবেক্ষণে থাকবেন, প্রয়োজন হলে হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সুস্থ বোধ করায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বুধবার (২৭ মার্চ) রাতে আর হাসপাতালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *